বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৪:৩৬ অপরাহ্ন

প্রেমের টানে ভারতে বাংলাদেশি কিশোরী, অতঃপর

জার্নালআই২৪ ডেস্ক
  • হালনাগাদ সময় : শুক্রবার, ১৯ মার্চ, ২০২১
  • ১০৪ বার

প্রেমের টানে ভারতে যাওয়ার পর দেশটির সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) হাতে আটক হয়েছে এক বাংলাদেশি এক কিশোরী। পতাকা বৈঠক শেষে বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই কিশোরীকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে বিএসএফ। পরে পুলিশ ওই কিশোরীকে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়।

জামালপুর ৩৫ এর রাইফেলস ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল মুনতাসির গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ওই কিশোরীর সঙ্গে ভারতীয় সীমান্তবর্তী গ্রামের আক্তার হোসেন নামে এক ছেলের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বৃহস্পতিবার বিকেলে মেয়েটি প্রেমের টানে বকশীগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে ভারতে চলে যায়। পরে আক্তার হোসেনকে খুঁজতে থাকে। এ সময় সন্দেহজনক আচরণে বিএসএফ তাকে আটক করে।’

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নবম শ্রেণি পড়ুয়া ওই কিশোরীর নাম মেরিনা আক্তার। সে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার পাররামপুর ইউনিয়নের রহিমপুর গ্রামের মিস্টার আলী মেয়ে।

বৃহস্পতিবার সকালে প্রেমের টানে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতের নন্দীরচর গ্রামে চলে যায় মেরিনা আক্তার। পরে সন্দেহজনক আচরণে বিএসএফ মেরনিাকে আটক করে।

জিজ্ঞাসাবাদে ওই তরুণী জানায়, তার বাড়ি বাংলাদেশে। পরে বিএসএফ বিজিবির সঙ্গে যোগাযোগ করে। এক পর্যায়ে বকশীগঞ্জ- কামালপুর স্থলবন্দর সীমান্তে পতাকা বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পতাকা বৈঠক শেষে ওই কিশোরীকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে পুলিশ ওই কিশোরীকে তার পরিবারের কাছে ফেরত দেয়।

পতাকা বৈঠকে বিজিবি-৩৫ ব্যাটালিয়নের পক্ষে নেতৃত্বে দেন কোম্পানী কমান্ডার আজমল হোসেন এবং ভারতের বিএসএফের পক্ষে নেতৃত্ব দেন এসকে বিশাল।

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2019 journaleye24
Theme Download From journaleye24.com
themesba-lates1749691102